কবরস্থান নিয়ে সংঘর্ষের সময় ব্যবহারিত অস্ত্র উদ্ধার: গ্রেফতার ১

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

বাকলিয়া থানার আব্দুল লতিফ হাট এলাকায় কবরস্থানে সাইনবোর্ড লাগানো নিয়ে সংঘর্ষের ব্যবহারিত অবৈধ অস্ত্রসহ মো: জাহিদুল আলমকে (২৪) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

১৫ জুন, মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে বাঁশখালী থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বাকলিয়া থানা এলাকা থেকে ১টি বিদেশী পিস্তল ও ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত মো: জাহিদুল আলম বাকলিয়া থানার মকবুল হাওলাদারের বাড়ির সাদেক শাহ মাজার এলাকার মৃত ইসহাকের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রুহুল আমীন বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে মো: জাহিদুল আলমকে বাশঁখালী থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সংঘর্ষের সময় ব্যবহারিত ১টি বিদেশী পিস্তল ও ২ রাউন্ড গুলি বাকলিয়া থানা এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয।

তিনি আরো বলেন, এ ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার ২১ জন আসামী মধ্যে আমরা ইতিমধ্যে ছয়জনকে গ্রেফতার ও ঘটনায় ব্যবহারিত একটি অস্ত্র উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি। এ ঘটনায় জড়িত থাকা আরো একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে তবে সে দায়ের হওয়া মামলায় এজাহারভুক্ত ছিল না কিন্তু ঘটনায় জাড়িত ছিল বলে স্বীকার করেছে।

উল্লেখ্য, গত ১২ জুন (শুক্রবার) সকালে আব্দুল লতিফ হাটখোলার বড় মৌলভী মসজিদের কবরস্থানে সাইনবোর্ড লাগানো নিয়ে দু পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ঘটে। এ ঘটনায় ৪ জন গুলিবিদ্ধসহ ১৩ জন আহত হন। সংঘর্ষের সময় কয়েকজন যুবক পিস্তল উঁচিয়ে গুলি করেন। পরে এ ঘটনায় ২১ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Welcome Back!

Login to your account below

Retrieve your password

Please enter your username or email address to reset your password.